বুধবার, ২২ জুন ২০২২, ০৪:০১ অপরাহ্ন
Logo
শিরোনাম :
অগ্নিদগ্ধ ছেলেকে দেখতে সীতাকুণ্ডে যেতে পারছেন না বাহুবলের সেফু মিয়া মাধবপুরে বঙ্গমাতা বঙ্গবন্ধু ফুটবল টুর্নামেন্টের উদ্ভোধন মাধবপুরে ঐতিহাসিক মুজিবনগর দিবস পালিত হবিগঞ্জ পল্লীবিদ্যুৎ লাইন টেকনিশিয়ানের বিরুদ্ধে টাকা আত্মসাতর অভিযোগ মাধবপুরে বৈকুন্ঠপুর চা শ্রমিক পরিবারের মাঝে চাল বিতরণ মাধবপুরে দুই সাংবাদিক কে চাঁদাবাজির মামলা দিয়ে হয়রানির চেষ্টা নেপাল ইন্টারন্যাশনাল আইকনিক এ্যাওয়ার্ড পেলেন ১১ বাংলাদেশী মাধবপুরে ইমারত নির্মাণ শ্রমিক ইউনিয়নের পরিচিতি ও আলোচনা সভা পুলিশের সোর্স কে কুপিয়ে ক্ষত বিক্ষত করেছে মাদক ব্যবসায়ীরা পিএইচ.ডি. ডিগ্রী অর্জন করায় মুহাম্মদ আশরাফুল আলম হেলালকে সংবর্ধনা
নোটিশ ::
দৈনিক হবিগঞ্জের বাণী পত্রিকার সকল প্রতিনিধি ও গ্রাহকদের কে আমাদের ফেইজবুক ফেইজ  এ লাইক দিয়া আমাদের সাথে সংযুক্ত থাকার জন‌্য বিশেষ ভাবে অনুরোধ করা হল। আমাদের ফেইজবুক ফেইজ: https://www.facebook.com/habiganjerbani  অনুরুধ ক্রমে: নির্বাহী সম্পাদক,দৈনিক হবিগঞ্জের বাণী।

বিশ্ব চিঠি লেখা প্রতিযোগিতায় প্রথম হবিগঞ্জের গর্ব নুবায়শা

হবিগঞ্জের বাণী ডেস্ক / ৩৩৪ বার
আপডেটের সময় : বৃহস্পতিবার, ১৬ সেপ্টেম্বর, ২০২১

হবিগঞ্জের বাণী ডেস্ক: বিশ্ব চিঠি লেখা প্রতিযোগিতায় প্রথম হয়েছে হবিগঞ্জের কৃতি সন্তান নুবায়শা। নুবায়শা মাধবপুর উপজেলার ধর্মঘর ইউনিয়নের আমবাড়িয়া গ্রামের ব্যাংক কর্মকর্তা মোহাম্মদ শফিকুল ইসলামের মেয়ে। বিশ্ব ডাক সংস্থার (ইউপিইউ) ৫০তম চিঠি লেখা প্রতিযোগিতায় লক্ষাধিক কিশোর-কিশোরীকে হারিয়ে শ্রেষ্ঠত্বের পুরস্কার পেয়েছে সে।

প্রতিযোগিতায় পত্র লেখার বিষয় ছিল ‘কোভিড-১৯’। নুবায়শা তার অনাগত বোনকে নিয়ে লেখা চিঠিতে করোনাকালে মৃত্যুভয়, স্বজন হারানোর ভয়ের কথা উল্লেখ করে। একই সঙ্গে প্রচণ্ড আশাবাদ ব্যক্ত করে একটি ভালো সময়ের জন্য।

নুবায়শার পরিবার সিলেট নগরীর পূর্ব শাহী ঈদগাহ এলাকায় বসবাস করে। তাদের গ্রামের বাড়ি হবিগঞ্জের মাধবপুর উপজেলার ধর্মগড় ইউপির আমবাড়িয়া গ্রামে।

নুবায়শা বাংলাদেশ ব্যাংক সিলেটের যুগ্ম পরিচালক মোহাম্মদ শফিকুল ইসলাম এবং সিলেট গ্রামার স্কুলের শিক্ষিকা জেসমিন আক্তার দম্পতির মেয়ে। সে ৮ম শ্রেণির ছাত্রী।

শফিকুল ইসলাম বলেন, মেয়ের এই অর্জন আমাদের পরিবারের মুখ উজ্জ্বল করেছে। তার চিঠির ভাষা ছিল আসাধারণ। যে কেউ চিঠি পড়লে মন শীতল হয়ে যাবে।

তিনি বলেন, তার অনাগত বোনকে নিয়ে ৮০০ শব্দের আবেগঘন ওই চিঠি লিখেছে। চিঠিতে করোনাকালে মৃত্যুভয়, স্বজন হারানোর ভয়ের কথা উল্লেখ করেছে। সেই সঙ্গে ভালো সময়ের প্রত্যাশার কথা তুলে ধরে।

গত ২৭ আগস্ট সুইজারল্যান্ডে সংস্থার কেন্দ্রীয় কার্যালয় থেকে প্রতিযোগিতার ফল ঘোষণা করা হয়। ফল প্রকাশের পর বিশ্ব ডাক সংস্থা নুবায়শাকে নিয়ে একটি ভিডিও ডকুমেন্টারি তৈরি করে প্রতিষ্ঠানের ইউটিউব চ্যানেল এবং ওয়েবসাইটে প্রকাশ করে।
সুইজারল্যান্ডে গিয়ে পুরস্কার গ্রহণ করবে নুবায়শা।
সূত্র: বাংলা ট্রিবিউন


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরো সংবাদ
Theme Created By ThemesDealer.Com